বাংলা ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স এপ্রুভ পাওয়ার সহজ উপায়

0
128

বর্তমান সময়ে সবচেয়ে সহজ উপায়ে বাংলা ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স এপ্রুভ পাওয়া যায় কীভাবে সে বিষয় গুলি নিয়ে আজকে আলোচনা করবো । আমরা জারা অনলাইনে কাজ করি তারাই সুধু জানি গুগল এডসেন্স আমাদের কাছে সোনার হরিণ । এছাড়াও যারা প্রফেশোনালী এটির সাথে কাজ করে তারা সরকারী চাকুরীর সাথে তুলনা করে এর কারণ একবার যদি আপনি একটি ওয়েবসাইট র‌্যাংক এ আনতে পারেন তাহলে বসে বসে সরকারী চাকুরীর মত উপার্জন করতে পারবেন।

ওয়েবসােইটে যে যে বিষয়গুলি থাকা জরুরী

আপনি যদি গুগল এডসেন্স এপ্রুভ পেতে চান তাহলে শুরু থেকেই আপনার সাইটে গুগলের নিয়ম অনুযায়ী তৈরি করতে হবে নয়তো কোন ভাবেই আপান আপনার সাইটে এপ্রুভ পাবেন না । আর সেগুলী বিষয় জান তে গুগল করলেই খুব সহজে জেনে নিতে পারবেন । সে বিষয়গুলির মধ্যে থেকে আমি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলি স্টেপ বােই স্টেপ তুলে ধরছি ।

১। প্রাইভেসি পলিসি: এই পেজটি না থাকলে কোন ভাবেই এপ্রুভ পাওয়া সম্ভব না গুগলের নিয়ম অনুযায়ী এই পেজ থাকতেই হবে এবং এই পেজে আপনার ওয়েবসাইটের সকল প্রকার প্রইভেসি তুলে ধরতে হবে ।

২। ট্রামস এন্ড কন্ডিশন: আপনার সাইটের অবশ্যই একটি নীতিমালা থাকতে হাবে ।

৩। কন্টাক আছ: কোন ভিজিটর এসে আপনার আরটিকেল পড়ে যদি আপনার সাথে কন্টাক করতে চায় সে জেন খুব সহজে আপনার সাথে যোগাযোগ করতে পারে।এ জন্যই কন্টাক আছ পেজ রাখা জরুরী।

৪। এবাউট: আপনার ওয়েবসাইটের সকল প্রকার তথ্য নিয়ে একটি পেজ যেমন: আপনি কি রিলেটেড আরটিকেল পাবলিস করবেন কোন ভাষায় প্রকাশ করবেন এ ধরনের সকল প্রকার তথ্য দিয়ে এই পেজটি খুলতে হবে ।

৫। মেনু এবং ক্যাটাগরিঃ আপনার সাইটে বেশ কিছু মেনু এবং ক্যাটাগরি থাকা জরুরী এবং প্রতিটা ক্যাটাগরিতে কন্টেন দিয়ে ভরপুর থাকতে হবে ।

৬। হেডার ফুটার বডি: আপনি একটি কথা চিন্তা করুন আমরা যে কোন কম্পানির সাথে যে কোন বিষয় নিয়ে যদি চুক্তি করতে চাই তাহলে তারা দেখবে কি আমাদের পোটফোলিও অথবা অফিসিয়াল চুক্তি করতে গেলে প্রথমে কিন্তু ভিজিট করে সেটা যে কোন কম্পানি হোক না কেন । আর ভিজিট করার কারণ তারা নিজের চক্ষু দিয়ে দেখে যে তার অফিস টা কেমন তাদের সাথে কাজ করা যাবে কিনা । আমি যদি আরেকটি উদাহরন দেই তাহলে আরো ক্লিয়ার বুঝতে পারবেন । কোন ছেলে যিদি পরিবারের মাধ্যেমে বিয়ে কেরে তখন দেখবেন ছেলে পক্ষ মেয়ে বাড়িতে গিয়েেঐ বাড়রে পরিবেশ , মেয়ের চেহারা চরিত্র, আত্তীয় সজন তকমন হবে এ টু জেট দেখে সিদ্ধন্ত নেয় যে বিয়ে হবে কিনা । সেম আমরা যখন গুগলের সাথে চুক্তি করবো তখন কিন্তু গুগল আমাদের ওয়েব সাইট ভিজিট করবে ।আর তখন যদি দেখে আমাদের সাইট অগোছালো তখন কি তারা এপ্রুভ দিবে কখনো না । অতএব হেডার ফুটার বডি সুন্দর ভাবে সাজানো টা অনেক জরুরী আর তাই বাংলা ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স এপ্রুভ সহজেই হবে ।

৭। কন্টেন বা আরটিকেল: মোস্ট ইনপডেন্ট একটি বিষয় আপনি সাইট এতো সুন্দর করে ডেভলোপ করলেন কিন্তু ভালো কন্টেন দিলেন না তোহোলে কোন উপকারে আসবে না ।এবং সুন্দর কন্টেন দিলেন কিন্তু কপিরাইট তাও কোন কাজে আসবে না । এক কথায় সুন্দর ভাবে এস ই ও ফ্রেন্ডলি কন্টেন দিতে হবে কোন প্রকার কপি রাইট থাকা জাবে না।

৮। ব্যকলিংক: আপনার ওয়েব সাইট গুগলে কিছুটাও হলে পরিচিত থাকতে হবেিআর এর জন্য প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ টি করে ব্লগ কমেন্ট কেরে ব্যাকলিংক নিতে হবে।

৯ঃ সোস্যাল সিগন্যাল: আপনার ওয়েব সাইটের সঙ্গে সোস্যাল ছাইট যুক্ত থাকতে হবে এবং ঐ সোস্যাল সাইটে আপনার লিংক শেয়ার করতে হবে । যেমন: একটা ফেজবুক পেজ খুললেন শেখানে আপনার সাইটের পোষ্ট শেয়ার করতে হবে এবং আপনার সাইটে পেজের লিংক যুক্ত রাখতে হবে ।

১০। জনপ্রিয়তা: অবশ্যেই আপনার সাইটের জনপ্রিয়তা থাকতে হবে মানুষের সামনে সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করতে হবে । যখনি যে কেউ দেখুক না কেন দেখার সাথে সাথে যেন তার ভালো লাগা সৃষ্টি হয় এতে ভিজিটর ও বারবে ।

উপরোক্ত এই বিষয় গুলি সঠিক ভাবে এপ্লাই করলে গুগল এমনিতেই আপনাকে বাংলা ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স এপ্রুভ দিয়ে দিবে ।

আমাদের সাধারণত যেগুলা ভুল করি

প্রথমেই চিন্তা ভাবনা না করে সাইট তৈরি করে কোন প্রকার ভালো মানের পেইড থিম না দিয়ে ফ্রিতে ভাইরাস যুক্ত থিম দিয়ে ডিজাইন করি এতে গুগল ভিজিটে আশা মাত্রই প্রবলেম ধরে ফেলে আর গুগল কখনো কপিরাইট ভাইরাস বা অন্যন্য এ্যাড পছন্দ করে না এপ্রুপ পাওয়ার পর চাইলে আপনি অন্য কম্পানির যে কোন ব্যানার এড ব্যাবহার করতে পারবেন কিন্তু কোন প্রকার ব্যানার এড ব্যবহার করা যাবে না । আবার অনেক সময় অন্য এ্যাড থাকা অবস্থায় এপ্লাই করি সো সব সময় এই সব খুটিনাটি ভুল ঘুলো যেন না হয় সেদিকে খেয়াল করে এপ্লাই করুন আশা করি খুব সহজেই গুগল এডসেন্স এপ্রুভ পেয়ে যাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here